চীনে ১০০ মানুষের জীবন নিল ঘাতক করোনা ভাইরাস

চীনে এই নতুন ধরনের ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এই পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়েছে।আজ বিবিসি আনলাইনে এই প্রতিবেদন উল্লেখ করা হয়।

চীনা সরকারি কর্তৃপক্ষ বলছে এই পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ১০৬। তাছাড়া সর্বশেষ খবরে ৪,০০০ মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

সবশেষ সিঙ্গাপুর ও জার্মানিতে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত রোগী শনাক্ত হয়েছে। এর আগে ফ্রান্স, জাপান, অস্ট্রেলিয়া, মালয়েশিয়া, নেপাল, সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ কোরিয়া, তাইওয়ান, থাইল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও ভিয়েতনামে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত রোগী শনাক্ত হয়।

চীনে বিভিন্ন অঞ্চলে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারী করা হয়েছে এবং ব্যাপক সচেতনতা ব্যবহার করা হচ্ছে।

বাংলাদেশে এখন এই ভাইরাসের কোনো রোগী শনাক্ত করা যায় নি কিন্তু বাংলাদেশ এয়ারপোর্টে এই বিষয়ে অত্যান্ত কঠোর ভাবে স্বাস্থ তল্লাশি করে দেশের অভ্যন্তরে ঢুকানো হচ্ছে।

মানুষের দেহে ভাইরাস সংক্রমণের পর লক্ষণ দেখা দিতে পারে এক থেকে ১৪ দিনের মধ্যে। কিন্তু লক্ষণ স্পষ্ট হওয়ার আগেই এ ভাইরাস ছড়াতে পারে মানুষ থেকে মানুষে। আর এ কারণেই চীনে এ রোগের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন হয়ে পড়েছে। এর লক্ষণ শুরু হয় জ্বর দিয়ে, সঙ্গে থাকতে পারে সর্দি, শুকনো কাশি, মাথাব্যথা, গলাব্যথা ও শরীর ব্যথা। সপ্তাহখানেকের মধ্যে দেখা দিতে পারে শ্বাসকষ্ট। সাধারণ ফ্লুর মতই হাঁচি-কাশির মাধ্যমে ছড়াতে পারে এ রোগের ভাইরাস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *