আকবর আলীঃ বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জয়ের কারিগর

মাত্র ১৯ বছর বয়সেও একজন অধিনায়কের দায়িত্ব কি সেটিই দেখিয়ে দিলেন এই তরুন যুবা। খাদের কিনারা থেকে দল কে টেনে তুললেন আর এনে দিলেন স্বপ্নের বিশ্বকাপ। অনেক সময় ছোটদের থেকে বড়দের শিক্ষা নিয়ার থাকে তারই এক উদাহরণ এই আকবর আলী। নিজেকে প্রমাণের এর থেকে বড় মঞ্চ আর কিবা হতে পারে। স্বপ্নের বিশ্বকাপ ফাইনাল আর তাতেই সেরা খেলোয়াড়। ভারত কে ৩ উইকেটের বিনিময়ে হারিয়ে বাংলাদেশের যুবারা এখন বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন।

ফাইনালে আকবর আলী ৪৩ রান করেন ৭৭ বল খেলে। যার মধ্যে ছিল ৪ টি ৪ এবং একটি বিশাল ছক্কা। এই পরিসংখ্যান দিয়ে আজ আকবর আলী কে মাপলে তাকে ছোট করা হবে কারন তিনি আজ ব্যাটিং এর থেকেও অধিনায়কের বেশি ভূমিকায় ছিলেন। একজন সত্যিকারের দলনেতা তিনি।

বাংলাদেশ মূলত তখনই ম্যাচটি নিজের কাছে নিয়ে আসে যখন আকবর আলী টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন। বোলিং এ বারবার বোলিং পাসে গিয়ে বোলার কে দিয়েছেন সাহস। কিংবা ম্যাচের শেষের দিকে যখন রকিবুল তেড়েফুঁড়ে খেললেন তখন তাকে ধমক দিলেন যা অনেকের ই অজানা। ম্যাচটা দায়িত্ব নিয়ে শেষ করে আসলেন।

দলের ওপেনার পারভেজ হোসাইন ইমনের ৭৯ বলে ৪৭ রানের প্রতি সম্মান রেখেই বলছি আজ আকবর আলী কে পাশে না পেলে অন্যদের মত তিনিও উইকেটের জালে কাটা পরতেন। তার এই ভাল খেলার পিছনেও মূল কারিগর ছিলেন এই আকবর আলীই।

অনেকে বলছেন এই দলে জাতীয় দলের ওপেনার তামিম ইকবালের মত আরেক নতুম তামিম কে বাংলাদেশ পাচ্ছে, সাকিব আল হাসানের মত আরেকটি নতুন সাকিব কে বাংলাদেশ পাচ্ছে কিন্তু আমি বলবো বাংলাদেশ এই তরুন-যুবাদের মধ্য থেকে মুশফিকুর রহিমের মত আরেকটি মুশফিক ও পাচ্ছে বাংলাদেশ। তিনি আকবর আলী।

আকবর আলী, জাতীয় দলের হয়ে খেলা দেখার জন্য তোমার অপেক্ষায় রইলাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *